ক্রিকেটার চামেলীকে ঢাকা আনা হয়েছে

প্রকাশ: ২০১৮-১১-০২ ০৯:২২:৫৩ || আপডেট: ২০১৮-১১-০২ ০৯:২২:৫৩

কর্ণফুলী ডেস্ক:
 

বাংলাদেশ জাতীয় নারী ক্রিকেট দলের সাবেক অলরাউন্ডার চামেলী খাতুনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজশাহী থেকে ঢাকায় আনা হয়েছে। শুক্রবার সকালে জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে আকাশপথে ঢাকা নিয়ে যাওয়া হয় তাকে।

চামেলীর সঙ্গে তার বোন, দুলাভাই, ভাবি ও জেলা প্রশাসনের একজন ম্যাজিস্ট্রেট আছেন। এছাড়া বাড়ি থেকে বিমানবন্দর নেওয়া পর্যন্ত তাদের সঙ্গে রাজশাহীর একজন আনসার সদস্য ছিলেন। ঢাকায় আলাদা আরেকজন আনসার সদস্য চামেলীর সঙ্গে সার্বক্ষণিক থাকবেন।

জেলা প্রশাসক এসএম আবদুল কাদের জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চামেলীর চিকিৎসার সমস্ত দায়িত্ব নিয়েছেন। তার নির্দেশনা মোতাবেক চামেলীকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। ঢাকায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) তাকে পঙ্গু হাসপাতালে নিয়ে যাবে। সেখানে তার শারিরীক অবস্থার পরীক্ষা-নীরিক্ষা করা হবে। দেশে তার চিকিৎসা সম্ভব না হলে বিদেশে পাঠানো হবে।

চামেলীর বাড়ি রাজশাহী নগরীর দরগাপাড়া এলাকায়। ২০১১ সালে পায়ের লিগামেন্ট ছিঁড়ে গেলে চামেলী জাতীয় দল থেকে অবসর নেন। তারপর চাকরি নেন আনসার ভিডিপিতে। কিন্তু লিগামেন্ট ছিঁড়ে যাওয়ার পাশাপাশি চামেলীর মেরুদণ্ডের দুই হাড়ের ফাঁকে থাকা নরম ডিস্কগুলোও নষ্ট হয়ে গেছে। এতে তার শরীরের পুরো ডান পাশ অবশ হয়ে যাচ্ছে।

শাহ মখদুম বিমানবন্দর থেকে নভোএয়ারের একটি ফ্লাইটে ঢাকায় আনা হয় চামেলী খাতুনকে।শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য তাকে প্রথমে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে নেয়ার কথা রয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর কাছ থেকে চিকিৎসা সহায়তা পাওয়ায় কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন চামেলীর পরিবার। এর আগে বিসিবি এবং জাতীয় দলের ক্রিকেটাররাও চামেলীর অসুস্থতার খবরে সাহায্যে এগিয়ে আসে।

রাজশাহীর ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক পারভেজ রায়হান জানান, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে যতো দ্রুত সম্ভব চামেলীকে ঢাকায় নিতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। পরিবারের সাথে আলোচনার পর চামেলীকে শুক্রবার হযরত শাহমখদুম বিমানবন্দর থেকে নভোএয়ারের একটি ফ্লাইটে ঢাকা নেয়া হয়।

 

ট্যাগ :